যদি আমি পারতাম, আমি এই চা স্টল এবং তার চারপাশে ঘিরে থাকা মানুষদের জীবন সম্পর্কে একটি সিনেমা তৈরি করতাম। আমি মনে করি এটা একটা বড় হিট হতো!”

Story from a tea stall in Dhaka

“আমি প্রায় 2 বছর ধরে এই চায়ের স্টল চালাচ্ছি । এটি একটি ধীর, কিন্তু স্থিতিশীল ব্যবসা। আমার পরিবার আমার ছেলের আয়ে ভালই চলে। এই ছোট চা স্টল থেকে যা যা আয় করি তা বাড়ির মাসিক আয়ে যোগ হয়। বেশিরভাগই আমি নিজেকে ব্যস্ত রাখার জন্য এই স্টল চালাই। এই কাজের সব চাইতে ভালো দিক কি জানেন? এখানে আসা প্রায় সবাই কে আমি চেহারায় চিনি। কয়েকজন মানুষ এবং তাদের গল্প। তাদের অধিকাংশই কাছের গার্মেন্টসে মধ্যে নয়তো আশপাশের ছোট অফিসে কাজ করে ।

মানুষ এখানে একটু চা আর তাদের প্রতিদিনের ঝুট-ঝামেলা নিয়ে গল্প করতে আসে। কখনও কখনও তারা আমাকে আমার মতামত সম্পর্কে জিজ্ঞাসা করে। চোখের সামনে এতো মানুষের জীবন রুপান্তর হতে দেখাটা একটা অদ্ভুত বিষয় (যদিও আমি জানি যে তাদের জীবনে আমার কোন ভূমিকা নেই)।

যদি আমি পারতাম, আমি এই চা স্টল এবং তার চারপাশে ঘিরে থাকা মানুষদের জীবন সম্পর্কে একটি সিনেমা তৈরি করতাম। আমি মনে করি এটা একটা বড় হিট হতো!”

– একটি গার্মেন্টস কারখানা্র কাছাকাছি অবস্থিত একটি ছোট চা স্টলের মালিক


“I’ve been running this tea stall for almost 2 years now. It’s slow but stable business. My family is well off on my son’s income. Whatever I make from this small tea stall is an addition to the monthly income at home. I run this stall for keeping myself busy, mostly. The best part? I have known faces visiting almost every day. It’s a few people and their stories. Most of them work in the garment nearby or work at the small offices around this neighborhood.

People drop by here for a cup of tea and talk about their day to day issues. Sometimes, they even ask me about my opinion. It’s quite fascinating, seeing so many lives grow and transform in front of my own eyes (although I know I have no role in their lives).

If I could, I would’ve made a movie about this tea stall and the lives of people revolving around it. I think it would’ve been a big hit!”

– Owner of a small tea stall located near a garment factory

This story is featured in Made In Equality, an initiative supported by C&A Foundation.